1. admin@dainikfatikchhari.com : ForkanMahmud :
ওমান প্রবাসীদের প্রতি রাষ্ট্রদূত গোলাম সরোয়ার,র আবারও খোলা চিঠি - দৈনিক ফটিকছড়ি
সোমবার, ১০ অগাস্ট ২০২০, ১২:৩১ পূর্বাহ্ন

ওমান প্রবাসীদের প্রতি রাষ্ট্রদূত গোলাম সরোয়ার,র আবারও খোলা চিঠি

এডিটর-দৈনিক ফটিকছড়ি
  • আপডেট টাইম সোমবার, ২৭ জুলাই, ২০২০
  • ৩১৩ বার

প্রবাসী ডেস্ক: করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ উদ্ভুত পরিস্থিতি ঘরবন্দী হয়ে বিশ্বব্যাপী যখন মানুষ আতংকে দিন কাটাচ্ছে, প্রবাসের মাঠিতে যখন বিভিন্ন কারণে অসংখ্য মানুষ মৃত্যু বরণ করছে, যখন ওমানে থাকা অবৈধ প্রবাসীরা দেশে ফিরতে অধিক আগ্রহে দিনগুনছে, এমন পরিস্থিতিতে ধৈর্য্য হারা না হয়ে নিজের স্বস্থ্যার প্রতি খিয়াল রেখে ওমানে অবস্থানরত বাংলাদেশী প্রবাসীদের উদ্দ্যেশ্য ওমান দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশী রাষ্ট্রদূত মোহাম্মাদ গোলাম সারওয়ার,র খোলা চিঠি।

ওমানে অবস্থারত প্রবাসী বাংলাদেশীদের উদ্দেশে মঙ্গলবার (২৮জুলাই) রাতে রাষ্ট্রদূত গোলাম সরোয়ার একটি খোলা চিঠি লিখেছেন।

চিঠিতে ওমান প্রবাসী বাংলাদেশীদের আহবান জানিয়ে রাস্ট্রদূত বলেন।

ওমানে বসবাসরত সকল বাংলাদেশি ভাই-বোনদের জানানো যাচ্ছে যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুঃখজনকভাবে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি ভাই ওমানে অকালে মৃত্যু বরন করেছেন। আমরা তাদের আত্নার মাগফেরাত কামনা করছি এবং তাদের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর দুঃখ প্রকাশ করছি।

এ বিষয়ে আমি ওমানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে কথা বলে জানতে পেরেছি যে বাংলাদেশি ভাই-বোনেরা রোগটির ভয়াবহতা অনেক সময় বুঝতে ভুল করেন এবং সহজে হাসপাতালে যেতে চান না। তাছাড়া অনেক সময় তারা দেরিতে হাসপাতালে যান ফলে তাদের অবস্থা জটিল আকার ধারণ করে। সময়মত হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা গ্রহন করলে শতকরা ৯৮ ভাগেরও বেশী মানুষ সুস্থ হবার সম্ভাবনা থাকে। তাই করোনা ভাইরাসের লক্ষন দেখা দিলে অর্থাৎ জ্বর, কাশি, গলা ব্যাথা, শরীর ব্যাথা বা সামান্যতম শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা হলে এক মুহুর্ত দেরি না করে নিকটস্থ স্বাস্থ্য কেন্দ্র বা সরকারি হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা গ্রহন করবেন। যদি কাছাকাছি কোন সরকারী হাসপাতাল না থাকে তবে নিকটবর্তী বেসরকারি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে গিয়ে দেখা করবেন এবং চিকিৎসা গ্রহন করবেন। আপনার আরবাব চিকিৎসা খরচ না দিলে বাংলাদেশ দুতাবাস মাস্কাট ওমান সরকারের মাধ্যমে আরবাবের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।

যাদের পতাকা আছে তারা পতাকা দেখিয়ে হাসপাতালে ডাক্তার দেখাবেন এবং ভর্তির প্রয়োজন হলে ভর্তি হবেন। এ ক্ষেত্রে আপনার আরবাব আইন অনুযায়ী সকল খরচ বহন করতে বাধ্য থাকবে। আপনার আরবাব চিকিৎসা খরচ না দিলে বাংলাদেশ দুতাবাস মাস্কাট ওমান সরকারের মাধ্যমে আরবাবের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।

যাদের পতাকা নাই অথবা যারা অবৈধ তারাও করোনা ভাইরাসের লক্ষন দেখা দিলে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে দেখা করবেন। ওমানের আইন অনুযায়ী করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা গ্রহন এবং ভর্তির প্রয়োজন হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আপনাদের চিকিৎসা সেবা দিতে বাধ্য থাকবে। যদি কোন হাসপাতাল পতাকা না থাকার কারনে আপনাদের চিকিৎসা না দেয় তবে বাংলাদেশ দুতাবাস মাস্কাট ওমান সরকারের মাধ্যমে সেই হাসপাতালের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে।

আপনারা সবাই ভালো থাকবেন, মহান আল্লাহ আমাদের সবার সহায় হউন।

মোঃ গোলাম সারোয়ার
রাস্ট্রদুত
মাস্কাট, ওমান

আপনিও শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরি আরো খবর...
সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-অত্র পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদ কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানের মানহানিকর হলে কর্তৃপক্ষ দায়ী নহে। সকল লেখার স্বত্ব ও দায় লেখকের
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazafatikcha54
//graizoah.com/afu.php?zoneid=3460431